সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপি

0
459

মুন্সীগঞ্জ/খাদিমপুর প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে বটিয়াপাড়া-শিয়ালমারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ফুটবল মাঠে এ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। এসময় প্রধান অতিথি বলেন, চারদিকে ষড়যন্ত্র চলছে। এ ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। আর এজন্য দলকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। তাই তৃণমূল পর্যায় থেকে দলকে সুসংগঠিত করতেই সম্মেলন করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে এসে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়েছে। তিনি ক্ষমতায় এসে দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়ে তুলেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করে চলেছেন। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে মেট্রো রেল ফ্লাইওভার পদ্মাসেতুর মতো বড় প্রকল্প হাতে নিয়ে এক নজির সৃষ্টি করেছেন। জেলা উপজেলায় স্কুল মাদরাসা কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাস্তাঘাট নির্মাণ করে চলেছেন। আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়নে বিশ্বাস করে। তাই দলকে সুসংগঠিত করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে আরও শক্তিশালী করার জন্য তিনি নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় এক শ্রেণির মানুষ ঈর্ষান্বিত হয়ে বাধা সৃষ্টি করে আসছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে দ্বিখ-িত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তাদের স্বপ্ন সফল করতে দেয়া হবে না। এসময় তিনি বিএনপি নেতা খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের উদ্দেশে করে বলেন, একুশে আগস্ট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর গ্রেনেড হামলা করে আমাদের নেতাকর্মীকে হত্যা করেছিলো। মানুষ খুন চাঁদাবাজি টেন্ডারবাজি সরকারি টাকা লুট করে দেশকে এক অরাজকতার দেশে রূপান্তর করেছিলো। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন আমরা মাঠে ছিলাম এখনো আছি বিএনপিকে ক্ষমতা থেকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে দেয়া হয়েছিলো। বিএনপি নেতাদের আন্দোলন কাকে বলে আওয়ামী লীগের কাছ থেকে শিখতে হবে। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে আলমডাঙ্গার খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।
ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো বাংলাদেশের একটি পতাকা, একটি জাতীয় সঙ্গীত, একটি পূর্ণাঙ্গ স্বাধীন দেশ। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছিলো, আমরা পেয়েছিলাম একটি সর্বভৌমত্ত স্বাধীন বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করে বাঙালি জাতিকে অর্থনৈতিক মুক্তি দিতে চেয়েছিলো। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট তাকে সপরিবারে হত্যা করেছিলো। আর জিয়াউর রহমান মিলিটারি শাসন জারি করে রাজাকার-আলবদর পাকিস্তানি পরাশক্তিদের মন্ত্রী বানিয়ে তাদের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়ে এ দেশকে পেছনে ঠেলে দিতে চেয়েছিলো। তারা ভেবেছিলো বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই আওয়ামী লীগকে নিঃশেষ করা যাবে।
অনুষ্ঠানে খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি সাইফুদ্দিন ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খুস্তার জামিল, যুগ্মসাধারণ সাবেক পৌর মেয়র সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মোহা. শামসুজ্জোহা, আলমগীর হান্নান ও মাসুদ উজ্জামান লিটু, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, অ্যাডভোকেট বেলাল হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জামসেদুর রহমান জোয়াদ্দার ও নুরুজ্জামান লাল্টু। উপস্থিত ছিলেন খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা কর্মী বৃন্দ। অনুষ্ঠানে সর্বসম্মতিক্রমে হাফিজুর রহমান বাবলু কে সভাপতি ও মোজাহিদুর রহমান লোটাস কে সাধারণ সম্পাদক করা হয়