আগুন নেভাতে গিয়ে ছেলে দগ্ধ : ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে পুড়ছে মায়ের হাত

0
Exif_JPEG_420

চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার রুদ্রনগরে চুলার আগুন রান্নাঘরের চালে

স্টাফ রিপোর্টার: ঘরের আগুন নেভাতে গিয়ে ছেলে সজল (২১) অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে আগুনে পুড়েছেন তার মা জাহানারা বেগম (৪৩)। দামুড়হুদার রুদ্রনগর গ্রামের মাঝপাড়ায় গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
অগ্নিদগ্ধ সজল ও তার মাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। মায়ের কয়েকটি আঙ্গুল পুড়লেও সজলের শরীরের ৩০ শতাংশ পুড়ে গেছে। দু’হাতসহ বুক ঝলে যাওয়া সজলের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে মন্তব্য করেছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার রুদ্রনগর মাঝেরপাড়ার মজিদ আলীর স্ত্রী জাহানরা বেগম সকালের রান্না করেন। এরপর চুলা থেকেই ছড়িয়ে পড়ে খড়ের ছাউনি দেয়া রান্না ঘরে। আগুনের লেলিহান শিখা নেভাতে গেলে ছেলে সজলের দু’হাত ও বুকসহ শরীরের অধিকাংশ ঝলসে যায়। তাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে মা জাহানারা বেগমের ডান হাতের আঙ্গুল ঝলসে যায়। মা ও ছেলেকে দ্রুত উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। অগ্নিকা-ে রান্নাঘর পুড়ে ভস্মীভূত হয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ ২০ হাজারের মতো।

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন