দামুড়হুদায় বিশ্ব ডিম দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভায় ইউএনও মুনিম লিংকন

0
55

সন্তানকে ফার্স্ট ফুড না দিয়ে একটি করে ডিম খাওয়ান
দামুড়হুদা ব্যুরো: সন্তানকে ফার্স্ট ফুডের পরিবর্তে ডিম খাওয়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মুনিম লিংকন। তিনি বলেছেন, বিশ্বের কয়েকটি সুপারফুডের মধ্যে পুষ্টিতে ভরপুর ডিম একটি অসাধারণ সুপারফুড। তাই প্রতিদিন স্কুলে আসার আগে একটি করে ডিম খাওয়ান। ডিম মেধার বিকাশ ঘটায়। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে জয়রামপুর বটতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিশ্ব ডিম দিবসের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। আমিষের ঘাটতি পূরণে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের ডিম খাওয়ানো অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, ডিম কিডনি ও মস্তিষ্কের কার্যকারিতা ঠিক রাখে। ডিম দেহের ওজন ও উচ্চ রক্তচাপ কমায়। ভিটামিন এ সম্মৃদ্ধ ডিম দৃষ্টি শক্তি উন্নত করতে সাহায্য করে। জয়রামপুর বটতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিরাজুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার নাসির উদ্দীন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা শামীমা আক্তার ও দৈনিক মাথাভাঙ্গার দামুড়হুদা ব্যুরো প্রধান বখতিয়ার হোসেন বকুল। ‘স্বাস্থ্য মেধাবী জাতি চাই-প্রতিদিনই ডিম খাই’ এই সেøাগানকে সামনে রেখে দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ দফতরের আয়োজনে বিশ্ব দিবস উপলক্ষে বিদ্যালয়ের ৫৮৮ জন ছাত্র-ছাত্রীকে একটি করে ডিম খাওয়ানো হয়। এছাড়া গত ১৪ অক্টোবর সোমবার দামুড়হুদা উপজেলা প্রাণিসম্পদ দফতরের উদ্যোগে চাকুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩৬২ জন শিক্ষার্থীকে একটি করে ডিম খাওয়ানো হয়। অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সহকারী শিক্ষিকা নাজমা খাতুন, নাসিমা আক্তার, রোকেয়া খাতুন, নাজমা খাতুন, আশরাফ আলী, সেলিনা খাতুন, শারমিন সুলতানা, মেহেনাজ পারভীন, ফাতিমা খাতুন, ফৌজিয়া আক্তার প্রমুখ।