৪দিন পর বাংলাদেশি কৃষকের মরদেহ ফেরত দিলো বিএসএফ

0

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত হওয়া বাংলাদেশি কৃষক ছলেমানের (৪৭) মরদেহ বাংলাদেশে ফেরত দিয়েছে।
গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে নিহত কৃষক ছলেমানের মরদেহ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মাধ্যমে দৌলতপুর থানা পুলিশের হাছে হস্তান্তর করে বিএসএফ।
নিহত ছলেমান দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ছলিমেরচর এলাকার শাহাদতের ছেলে।
কুষ্টিয়া ৪৭ বিজিবি’র সহকারী পরিচালক জিয়াউর রহমান জানান, দৌলতপুর উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের ডিগ্রিরচর সীমান্ত এলাকার ৮৪/২-এস সীমান্ত পিলার সংলগ্ন নোম্যান্স ল্যান্ডে বিজিবি ও বিএসএফ এর মধ্যে বাংলাদেশি কৃষক ছলেমানের মরদেহ গ্রহণের জন্য পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
পতাকা বৈঠকে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ চিলমারী বিজিবি কোম্পানির অধিনায়ক সুবেদার কাছার আলী এবং বিএসএফ’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ১৪১ বিএসএফ কমান্ডেন্ট অধীনস্থ চরভদ্রা বিএসএফ ক্যাম্পের অধিনায়ক এসি বলরাম সিং।
আনুষ্ঠানিকতা শেষে কৃষক ছলেমানের মরদেহ দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আরিফুর রহমানের নিকট হস্তান্তর করা হয় বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য গত ৪ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ছলিমেরচর সীমান্তের ১৫৭/২-এস সীমান্ত পিলার সংলগ্ন বাংলাদেশি ভূ-খ-ে নিজ জমিতে রায়-সরিষা কর্তন করছিলেন কৃষক ছলেমান।
এ সময় ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার ১৪১ বিএসএফ কমান্ডেন্ট অধীনস্থ মুরাদপুর ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ বিনা উস্কানিতে তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে কৃষক ছলেমান গুলিবিদ্ধ হলে বিএসএফ তাকে ধরে যায়।
পরে তাকে ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকেলে ছলেমান মারা যান।

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন