দামুড়হুদা কুড়ুলগাছিতে তরিকুলের বিরুদ্ধে শ্যালকের স্ত্রীর ঘরে ঢোকার অভিযোগ

0
34

কুড়ুলগাছি প্রতিনিধি: দামুড়হুদা কুড়ুলগাছিতে তরিকুলের বিরুদ্ধে শ্যালকের স্ত্রীর ঢোকার অভিযোগ উঠেছে। এদিকে শ্যালকের বউয়ের দাবি জোরপূর্বক দরজা খুলে তার ঘরে প্রবেশ করে তরিকুল।
এলাকাবাসী জানান, দামুড়হুদা উপজেলার কুড়–লগাছি পশ্চিমপাড়ার শাহাজানের ছেলে তরিকুল ইসলাম। সে এলাকায় বহুল আলোচিত। তার শ্যালক বাড়ি না থাকার সুযোগে গত বুধবার রাত ১০টার দিকে তার শ্যালকের স্ত্রীর ঘরে প্রবেশ করে। এসময় তারা গোপন অভিসারে মিলিত হয়। তরিকুলের স্ত্রী জানান, তাদের দাম্পত্য জীবনে রয়েছে ১টি সন্তান। বিদ্যুত চমকানো দেখে তরিকুলকে বারবার ফোন দিলেও সে ফোন ধরে না। পরে তার ভাবীর ঘরে গিয়ে বলে তার স্বামী বাড়ি নেই। ফোনও ধরছে না তাই বাচ্চা ও আমার খুব ভয় করছে। আমি তোমার এখানেই কিছুক্ষণ থাকবো। দরজা খোলো। কিন্তু তার ভাবী দরজা না খুলে নানান তালবাহানা করে। অবশেষে দরজা খোলে। ঘরে ঢুকে দেখতে পায় তার স্বামী তরিকুল ঘরের খাটের নিচে লুকিয়ে রয়েছে। এসময় তার ভাবী ও স্বামী তার মুখ চেপে ধরে। তখন সে পালিয়ে যায়। সারারাত চুপ থাকলেও সকালে তার ভাবী প্রচার করে তার ননদের স্বামী তরিকুল জোরপূর্বক তার ঘরে প্রবেশ করে। তখন সে মানসম্মানের ভয়ে কোনো চিৎকার করেনি। কিন্তু তার ননদ এসে দেখে ফেলে। তরিকুলের শ্বশুর জানান, পশুর চাইতেও খারাপ। আমার মেয়েকে বিয়ে করে নিজ শাশুড়ির সাথেও অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে। এই কারণে আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিই। তরিকুল একাই আমার মেয়ে, আমার স্ত্রী, আমার ছেলের স্ত্রীকে সর্বনাশ করলো। এখন ওর শাস্তি চায়।