বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে- ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপি

0

চুয়াডাঙ্গার মাখালডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন 
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর নবগঠিত মাখালডাঙ্গা ইউনিয়ন আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন গতকাল শনিবার বিকেল ৩টায় মাখালডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সম্মেলনে বিশ^জিত সাহা সভাপতি ও ডা. রফিকুল ইসলাম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। শংকরচন্দ্র ইউনিয়ন আ.লীগের সিনিয়র সহসভাপতি নুর হাসেমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন এ অঞ্চলের মেহনতি মানুষের ঠিকানা, মুক্তিযুদ্ধের দক্ষিণ পশ্চিম রণাঙ্গনের সংগঠক, চুয়াডাঙ্গা জেলা আ.লীগের প্রাণপুরুষ চুয়াডাঙ্গার উন্নয়নের রূপকার চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক বিশ^মানবতার মূর্তপ্রতীক বাংলার স্থাপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। বঙ্গবন্ধুর সৈনিকেরা কখনও অন্যায়ের কাছে মাথানত করে না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে তারই যোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশ গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করে যাচ্ছেন নিরন্তর। ১৯৭১ এ বঙ্গবন্ধুর উদ্যত্ত আহ্বানে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলো এদেশের দামাল ছেলেরা। দীর্ঘ ৯ মাস আমরণ লড়াইয়ের মধ্যদিয়ে অর্জিত হয়েছিলো আজকের এ স্বাধীনতা। বাংলাদেশ স্থান পেয়েছিলো বিশ^ মানচিত্রে। আমরা পেয়ে ছিলাম সবুজের বুকে খচিত লাল সূর্য। বিধ্বস্ত এ দেশটাকে যখন গুছিয়ে নিচ্ছিলেন বঙ্গবন্ধু ঠিক তখনি স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় এ দেশের কলঙ্কিত সন্তানেরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার মধ্যদিয়ে সৃষ্টি করে ছিলো কালো অধ্যায়। এ দেশের মানুষ যখন নানা সমস্যায় জর্জিত খুন, রাহাজানি, হত্যা, ছিনতাই’র কবলে পড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলো ঠিক তখনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দীর্ঘ ২১ বছর ক্ষমতায় আসে আ.লীগ সরকার। সব জঞ্জাল সরিয়ে দেশ আজ উন্নয়নের স্বর্ণ শিখরে। উন্নয়নের এ ধারাকে ধরে রাখতে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সকলকে এক কাতারে দাঁড়িয়ে কাজ করতে হবে নিষ্ঠা ও সততার সাথে। একটি কথা মনে রাখতে হবে আ.লীগ একটি বড় দল। এদলে কোনো দ্বন্দ্ব নেই, আছে নেতৃত্ব পাওয়ার প্রতিযোগিতা। তাই যেই নেতৃত্ব পাবেন সবাইকে সাথে নিয়ে কাজ করতে হবে।

সম্মেলন উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান নান্নু। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা আ.লীগের সিনিয়র সহসভাপতি অ্যাড. শামশুজ্জোহা, জেলা আ.লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক চুয়াডাঙ্গা সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, জেলা আ.লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, মাসুদ উজ্জামান লিটু বিশ^াস, দফতর সম্পাদক শওকত আলী, সদর উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদত হোসেন। জেলা যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরশাদ উদ্দিন আহমেদে চন্দনের উপস্থাপনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আ.লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম, মোবারক হোসেন, হামিদুল্লাহ, আনোয়ার মাস্টার, মানিক, বাবুল, গরিব রুহানী মাসুম, কাবি, নুর হোসেন, ভনা, বাদল, জমির, আনারুল, শহিদুল, লিটন, হোসেন, আবাদত, কাদের, সোহাগ, ছানোয়ার, জামিরুল, মুক্তার, ফিরোজ, কালাচাঁদ, সেন্টু, বিদ্যুত, নাজিবুল, শরিফুল, সরজেত, রানা, কুদ্দুস, জাহিদ, মতি, হকা, টুটুল, সাইফুল, আসাদুল, সৈয়দ, মতিয়ার, লেবু, ফটিক, আলা, যুবলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম আসমান, আরেফিন আলম রঞ্জু, আব্দুল কাদের প্রমুখ। আলোচনা শেষে অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় অধিবেশন। ৯ ওয়ার্ডের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের ভোটের মাধ্যমে সভাপতি নির্বাচিত হন শ্রী বিশ^জিত সাহা, সাধারণ সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম রফিক। সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৩ জন এবং সাধারণ সম্পাদ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৪ জন।

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন