জীবননগরে টিনের চিমনি ও কাঠ ব্যবহার করে দুটি ইটভাটা চালু করেছেন দুই ভাটা মালিক

0

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় শতাধিক ইটভাটা রয়েছে। এসব ইটভাটার বেশিরভাগই পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র নেই। তারপরও তারা বহাল তবিয়তে চলতি মরসুমে ইটভাটার কার্যক্রম শুরু করেছে। এমনই দুটি ইটভাটা জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নের দেহাটি গ্রামে এবি ব্রিকস ও শাহ ভাটা।
দুটি ভাটাই টিনের চিমনি ও কাঠ ব্যবহার করে ইটভাটা সম্প্রতি চালু করেছে। এসব অবৈধ ইটভাটা বন্ধে প্রশাসন ব্যবস্থা গ্রহণ করে পরিবেশ রক্ষা করবে এমনটি আশা এলাকাবাসীর।
জীবননগর উপজেলার দেহাটি গ্রামের দুই ভাই আশরাফুজ্জামান ও আরিফ টিনের চিমনি ও কাঠ জড়ো করে ইটভাটা চালু করেছেন। তার ইটভাটার নাম এবি ব্রিকস। তার পাশেই রয়েছে শামিম শাহের ইটভাটা শাহ ইটভাটা। এটিও টিনের চিমনি ব্যবহার করে কাঠ জড়ো করেছেন। দুটি ইটভাটাই বর্তমান আইনের পরিপন্থি । টিনের চিমনি ব্যবহার দীর্ঘদিন আগে পরিবেশ সরকারিভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন