সিঙ্গাপুরে গাংনীর সাইফ আহম্মেদের মৃত্যু নিয়ে ধূম্যজাল

0

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনীর পূর্বমালসাদহ গ্রামের সাইফ আহম্মেদ আত্মহত্যা করেননি তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে পরিবারের দাবি। গতকাল শনিবার বিকেলে গাংনী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে হত্যাকা-ে সন্দেহ পোষণ করে তার স্বপক্ষে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন। ২০১৮ সালের ৯ নভেম্বর সিঙ্গাপুরে সাইফের মৃত্যুর খবর পান তার পরিবার। সে পূর্বমালসাদহ গ্রামের জামাত আলীর ছেলে।
সংবাদ সম্মেলনে সাইফের পিতা লিখিত বক্তব্যে বলেন, ২০১৭ সালের ১৪ আগস্ট পূর্বমালসাদহ গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে সাহেদ ও রফিকুল ইসলামের ছেলে আশরাফুলের হাত ধরে সিঙ্গাপুর যায় সাইফ। সিঙ্গাপুরস্থ কোম্পানিতে শ্রমিক পদে কাজ নেন। মোটা অংকের বেতন পাওয়ায় সাইফ ও তার পরিবারের লোকজন বেশ খুশিই ছিােল। কিন্তু সেই সুখ বেশি দিন ছিলো না। ২০১৮ সালের ৯ নভেম্বর তার মৃত্যুর সংবাদ আসে বাড়িতে। আত্মহত্যার মতো অভিশপ্ত পথ বেছে নিয়েছে বলে সিঙ্গাপুর থেকে তাদেরকে জানানো হয়। প্রধান অফিসের পানির ট্যাঙ্কি থেকে সাইফের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে তার সহকর্মীরা জানায়। তবে ওই ভবনের ছাদের সিঁড়ি ঘরের সমস্ত দরজা বন্ধ ছিলো। এমন খবর নিশ্চিত হওয়ার পর মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে পরিবারে সন্দেহ দেখা দেয়।
সাইফের এ মৃত্যুকে স্বাভাবিকভাবে নিতে পারছে না তার পরিবার। সংশ্লিষ্ট কোম্পানি কোনো ময়না তদন্ত প্রতিবেদন ও মৃত্যুর কারণ না জানিয়ে মাত্র তিন লাখ টাকা পরিশোধ করেন। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন চেয়ে দালাল ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে ঘোরাঘুরি করেও কোনো ফল পায়নি ভুক্তভোগী পরিবার। ফলে তাকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন সন্দেহ বেড়েই চলেছে পিতা-মাতার মনে। সন্তানের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে তাই সংশ্লিষ্ট সকলের কাছেই অনুরোধ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গাংনী প্রেসক্লাবের সকল সাংবাদিকবৃন্দ।

 

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন