করোনাভাইরাস প্রতিরোধে  মাস্ক সাবান লিফলেট বিতরণ

0

আতঙ্কিত না হয়ে নিজে সচেতন হওয়া অন্যকেও সচেতন করার আহ্বান
মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর ও ঝিনাইদহের বিভিন্ন স্থানে মাস্ক সাবান লিফলেট বিতরণ এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বিভিন্ন সময়ে পৃথক প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে এসব বিতরণ ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।
চুয়াডাঙ্গায় করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রতিরোধে করণীয় সংক্রান্ত বিষয়ে লিফলেট বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃধবার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিট কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও শহরের বিভিন্নস্থানে লিফলেট বিতরণ করা হয়। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে আলোচনা করেন চক্ষু হাসপাতালের চিকিৎসক কনসালটেন্ট ডা. এমবি আজম। এসময় রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের সেক্রেটারি শহিদুল ইসলাম সাহান, ইউনিট কার্যকরী সদস্য অ্যাড. আকসিজুল ইসলাম রতন, অ্যাড. রফিকুল ইসলাম, ইউনিট অফিসার গৌর চন্দ্র বিশ্বাস, চক্ষু হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. তমান্নাজ তাসনিম, অপথালমিক প্যারামেডিক্স ইউনুস আলী, যুব রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের যুব প্রধান জাহাঙ্গীর আলম, উপযুব প্রধান (১) জান্নাতুল নাঈমা ও যুবউপ প্রধান (২) বিপ্লব হোসেনসহ যুব সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির লিফলেটে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হোন, আতঙ্কিত হবেন না। করেনা প্রতিরোধে নিজে সচেতন হোন, অন্যকেও সচেতন করুন। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশি, আক্রান্ত ব্যক্তিকে স্পর্শ ও পশু-পাখি বা গবাদি পশুর মাধ্যমে ছড়ায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রথম লক্ষণ জ্বর, এছাড়াও শুকনো কাশি/গলা ব্যথা হতে পারে এবং শ্বাসকষ্ট/নিউমোনিয়া দেখা দিতে পারে। ভালোভাবে সাবান পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে, হাত না ধুয়ে চোখ, মুখ ও নাক স্পর্শ না করা। হাঁচি-কাশি দেয়ার সময় বাহু/টিস্যু/কাপড় দিয়ে মুখ ঢেকে রাখা। অসুস্থ পশু বা পাখির সংস্পর্শে না আসা। মাছ ও গোশত ভালোভাবে রান্না করে খাওয়া। কোনো ধরনের লক্ষণ দেখা দিলে দেরি না করে অতিসত্বর নিকটস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যোগাযোগ করুন।
জনসমাগম এড়িয়ে বিভিন্ন টিমে বিভক্ত হয়ে হ্যান্ডস্যানিটাইজার, হ্যান্ড গ্লোভস, মাস্ক, সাবান ও সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ। গতকাল বেলা ১১টার দিকে পৌরসভা মোড়ের চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের নির্ধারিত স্থানের সামনে গরিব অসহায়দের মাঝে মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক। একইসাথে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে সবাইকে নিজ বাসায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নভাবে থাকতে বলেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দরা।
এফএনবি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সদস্য সংস্থা জনকল্যাণ সংস্থা, সৃষ্টি সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা, ব্র্যাক, ব্যুরো বাংলাদেশ, আশা, জাগরণীচক্র ফাউন্ডেশন, উষা ফাউন্ডেশন, জামান ফাউন্ডেশন, টিএমএসএস ফাউন্ডেশন ও ঐষী সংস্থার উদ্যোগে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চুয়াডাঙ্গা জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে মাইকিং করে জনগণকে কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেয়াসহ পোস্টার ও মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও এফএনবি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সদস্য সংস্থাগুলোর চলমান সমস্ত কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে। আতঙ্কিত না হয়ে, সচেতন হই, আপনি আমার জন্যই ঘরে থাকুন, নিজেকে ও অন্যকে নিরাপদ রাখতে পরামর্শ দেয়া হয়।
করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গায় মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেছে জয়বিজয় মহিলা সমিতি। গতকাল বুধবার বেলা ১২টার দিকে শহরের ঘনবসতিপূর্ণ ফার্মপাড়া, হকপাড়া, রেল কলোনী এলাকায় এ মাস্ক ও সাবান বিতরণ করা হয়। এসময় সমিতির পরিচালক আফরোজা পারভীন বলেন, অন্যরা শহরের মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় করোনা প্রতিরোধে সবাইকে সচেতন ও বিভিন্ন জিনিসপত্র বিতরণ করছে। কিন্তু ঘনবসতিপূর্ণ ওই এলাকার মানুষ সবচেয়ে বেশি অসচেতন। ফলে আমরা ওইসব এলাকায় গিয়ে সবাইকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনসহ মাস্ক ও সাবান বিতরণ করছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন জয়বিজয় মহিলা সমিতির সদস্য সুফিয়া খাতুন, চায়না খাতুন, গিনি খাতুন, নান্টু, শাকিব প্রমুখ।
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য লিফলেট বিতরণ করা হয়। গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন-বিএনএফ চুয়াডাঙ্গা জেলার সদস্য সংগঠন সমূহের উদ্যোগে চুয়াডাঙ্গা শহরের কোর্টমোড়, জর্জকোর্ট চত্বর ও বিভিন্ন পাড়ার মধ্যে লিফলেট বিতরণ করেন। এসময় জনবহুল এলাকায় অনেকের মাস্ক ব্যবহার না করে চলাফেরা করায় তাদেরকে মাস্ক ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের সদস্য সংগঠন রিসোর নির্বাহী পরিচালক জাহিদুল ইসলাম, পাস’র নির্বাহী পরিচালক ইলিয়াস হোসেন, গ্রামীণ সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাইদুর রহমান লিপু, আলাপের নির্বাহী পরিচালক আশফাকুর রহমান, ওয়ার্প’র নির্বাহী পরিচালক আবেদ উদ দৌলা, উষার সমন্বয়কারী আলমগীর হোসেন, রিসোর সমন্বয়কারী দারুল ইসলাম, মৌচাকের প্রতিনিধি বুলবুল আহাম্মেদ।
ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গা সদরের ফুলবাড়ী গ্রামকে করোনা ভাইরাসমুক্ত রাখার ও করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য ফুলবাড়ী পুলিশিং কমিটির পক্ষ থেকে মাইকিংসহ বিভিন্ন ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার গ্রামে মাইকিং করা হয়েছে। এছাড়াও আগামী ১ মাসের মধ্যে অন্য গ্রামের কোনো বিদেশ ফেরত ব্যক্তি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা ও শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষা না করে গ্রামে কোনো আত্মীয় বাড়িতে অবস্থান করবেন না, তাছাড়া কোনো আত্মীয় ১ দিনের বেশি কারো বাড়িতে অবস্থান করবেন না, এছাড়াও গ্রামের কোনো মানুষ বিদেশ থেকে ফেরত এসে বাড়িতে অবস্থান না করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কোয়ারেন্টিনে অবস্থান করে বাড়িতে আসার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। যদি কেউ এ সিদ্ধান্ত অমান্য করে তরে তার বিরুদ্ধে সামাজিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বা প্রশাসনকে জানানো হবে।
আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায় করোনাভাইরাস সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন করতে পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে মাস্ক, লিফলেট বিতরণ ও জীবাণুণাশক স্প্রে উদ্বোধন করছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম। গতকাল বুধবার বিকেলে আলমডাঙ্গা এরশাদপুর, চাতালমোড় থেকে শুরু করে ওয়ার্ডের সকল জায়গায় স্প্রে করেন। এসময় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম জনসাধারণকে জনসমাগম এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার রাখতে হবে এবং অপ্রয়োজনে শিশুদের ঘরের বাইরে আনা বিরত থাকতে হবে।’ এছাড়া তিনি সকলকে শারীরিক কোনো সমস্যা দেখার সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়ার আহ্বান জানান। এসময় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করোনা সম্পর্কে তাদের পরামর্শ জানতে বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ এগিয়ে এলে তিনি সবাইকে এ বিষয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আরমান আলী, রাজিবুল ইসলাম রাজিব, বিপ্লব, মারুফ, মুরগী হালিম, বাপ্পি, মিনারুল, মন্টু, বাবুল, ওসমান, রাশিদুল, আরিফ, ফারুক, বাবলু, ডা. জহুরুল ইসলাম প্রমুখ।
দর্শনা অফিস জানিয়েছে, গোটা বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করেছে মরণঘাতী করোনা ভাইরাস। করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ হচ্ছে সর্বস্থরে। শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের পক্ষ থেকে দর্শনায় মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে দর্শনা রেলবাজার এলাকায় ব্যবসায়ী ও পথচারীদের মধ্যে মাস্ক ও লিফলেট বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আবিদ হাসান রিফাত, সাংগঠনিক সম্পাদক সজল আহম্মেদ পলাশ, দামুড়হুদা উপজেলা শাখার প্রচার সম্পাদক হৃদয় হাসান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রেদোয়ান সাহেদ প্রাণ, সদস্য সাকিব প্রমুখ। শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে গতকাল বুধবার থেকে এ কার্যক্রম শুরু করেছে। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত গোটা দেশে এ কার্যক্রম চলবে বলে জানান সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সভাপতি কাওসার আলম সোহেল।
কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঢাকাস্থ দামুড়হুদা উপজেলা ছাত্রকল্যাণ সংস্থা করোনা ভাইরাসরোধে লিফলেট, মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে কার্পাসডাঙ্গা বাজারে জনসচেতনতার সৃষ্টির লক্ষ্যে লিফলেট এবং ব্যবসায়ী ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেছে। পরে বাজারের যেসকল স্থানে টিউবওয়েল স্থাপন করা আছে সেখানে একটি করে সাবান দিয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকাস্থ দামুড়হুদা উপজেলার সভাপতি মো. সজিব, সহসভাপতি মিনহাজুল আবেদিন কুয়াশা, সাধারণ সম্পাদক আরাফাত হোসাইন অভি, যুগ্মসম্পাদক নাবিল মুনতাসীর, পরিকল্পনা সম্পাদক শিবলু খান, উপআইন সম্পাদক মানিক মিয়া।
অপরদিকে, করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হই, সুস্থ থাকি স্লোগানকে সামনে রেখে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় ব্র্যাকের উদ্যোগে জনসচেতনার সৃষ্টির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে ব্র্যাক কার্পাসডাঙ্গা শাখা ব্র্যাঞ্চের সকল সদস্যরা কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে লিফলেট বিতরণ করা করেছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন শাখা ব্যবস্থাপক মতিউর রহমান, পিও জাকির হোসেন, সাবিনা ইয়াসমিন, জওনাব খাতুন, প্রলয় বিশ্বাস, আব্দুল খালেক।
ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা বাজারে লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করেছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ভরসা বহুমুখী সমবায় সমিতি কার্পাসডাঙ্গা শাখার ব্যবস্থাপক মি. দ্বিজেন ম-লের উপস্থিতিতে ইন্দরা চত্বরে পথচারীদের মাঝে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে বিকেল সাড়ে ৫টায় কার্পাসডাঙ্গা ব্রিজ মোড়ে এক্সপোর্ট পয়েন্টের স্বত্বাধিকারী সানোয়ার হোসেন পথচারীদের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করেন।
মেহেরপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস মানুষের সংস্পর্শেই সংক্রমিত হচ্ছে এ ভাইরাসটি। করোনা ভাইরাস ছড়ানোর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে নিয়মিত ভালোভাবে হাত না ধোয়া। গতকাল বুধবার দুপুরে শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রিকশাওয়ালাদের মাঝে হাত ধোয়ার সাবান, মাস্ক, লিফলেট বিতরন করেণ পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ গোলাম রসুল। পরে মেহেরপুর জেলার গরিব অসহায়দের মাঝে বিতরণের জন্য জেলা পরিষদের সকল সদস্যদের হাতে হাত ধোয়ার সাবান, মাস্ক, লিফলেট তুলে দেন চেয়ারম্যান। এসময় ১ হাজার সাবান ও ১ হাজার মাস্ক দেয়া হয়। এসময় পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম রসুল বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে হাত সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, বারবার হাত ধোয়া, ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরা ভালো। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হাত ধোয়া সম্পর্কে সচেতনতা করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাস যেন আপনাকে র্স্পশ না করতে পারে এ জন্য পরিষদের সদস্যদের মাধ্যমে গ্রামের গরিবদের মাধে এসকল উপকরণ দেয়া হয়। এসময় জেলা পরিষদের সদস্য আজিমুল বারি মুকুল, আলমাস হোসেন শিলু, ইমতিয়াজ হোসেন মিরন, রফিকুল ইসলাম, খাজা মঈনুদ্দিন লিটন, মজিরুল ইসলাম, তৌহিদ মুর্শেদ অতুল, নার্গিস আরাসহ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
বারাদী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুরের সিংহাটি গ্রামে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা ১২টার দিকে সিংহাটি গ্রামের সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বাবু খান নিজ উদ্যোগে এ লিফলেট বিতরণ করেন। গ্রামের সাধারণ জনগণকে তিনি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে অবহিত করেন এবয় এর থেকে পরিত্রাণের জন্য সচেতন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন শিমুল খান, বিট্টু খানসহ গ্রামের সাধারণ জনতা। অপরদিকে বারাদী বাজারে সাবিদ ফার্মেসি ও সালমান ট্রেডাঁসের উদ্যোগে অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ হয়েছে। বিকেল ৫টার দিকে বারাদী বাজারে পথশিশু অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে এ মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়। সাবিদ ফার্মেসির স্বত্ত্বাধিকারী মাহফুজুর রহমান বলেন- দেশে চলমান করোনা ভাইরাস সম্পর্কে গণসচেতনতা গড়ে তুলতে আমার চলমান বিতরণ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।
কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক, সাবান, হ্যান্ড গ্লাভস বিতরণ করলেন ঝিনাইদহ-৩ (কোটচাঁদপুর-মহেশপুর) আসনের এমপি অ্যাড. শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল। গতকাল বুধবার সকালে পৌর শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে সাধারণ অসহায় মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা হিসেবে নিজ হাতে লিফলেট ও স্যানেটারি সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, কোটচাঁদপুর থানার ওসি (তদন্ত) ইমরান আলম, এলাঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান খানসহ আ.লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এর আগে তিনি মহেশপুর পৌর শহরেও অনুরুপ সামগ্রী বিতরণে কাজে অংশ নেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

Loading Facebook Comments ...

প্রত্যুত্তর দিন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন