শীতের তীব্রতা আরো তিন দিন : বৃষ্টির পর বাড়তে পারে তাপ

চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে দুস্থ শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত

 

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে বিরাজমান মৃদু শৈত্যপ্রবাহ ধীরে ধীরে অন্য এলাকায় বিস্তার করে আরও তিন দিন চলমান থাকতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, পৌষ মাসের দ্বিতীয়ার্ধে এসে শুক্রবার ঘন কুয়াশার চাদরে উত্তরী হাওয়ায় তাপমাত্রা কমছে। কোথাও কোথাও শৈত্যপ্রবাহ মাঝারি পর্যায়ে অর্থাৎ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রূপ নিতে পারে। তবে মঙ্গলবার বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়বে। এদিকে চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। অপরদিকে গতরাত ১১টা থেকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথ কুয়াশার কারণে বন্ধ হয়ে গেছে।

Shit

আবহাওয়া অধিদপ্তরের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সানাউল হক বলেন, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং বিরাজমান শৈত্যপ্রবাহ আরো অন্তত তিনদিন চলতে পারে। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাত থেকে আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়েছে। গতকাল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চুয়াডাঙ্গায় গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৫। গতপরশুর চেয়ে গতকাল রাজধানীসহ দেশের অধিকাংশ এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ থেকে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে অবস্থান করছে। ২৯ ডিসেম্বর থেকে ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত এ সপ্তায় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এ সময় তাপমাত্রা একটু বাড়তে পারে। আবহাওয়া অফিস জানায়, স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। সারাদেশে ডিসেম্বরে ৮ থেকে ১০ মিলিমিটার স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। বৃষ্টির পর জেঁকে বসা একটু তীব্র হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। ওই দিন পর্যন্ত থাকবে কুয়াশার দাপট। মঙ্গলবার রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনা। বৃষ্টি হলে কুয়াশা কেটে যাবে, শীতও কমবে।

ভালাইপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার চিৎলা ইউনিয়নের ভালাইপুর যুবউন্নয়ন সঙ্ঘের উদ্যোগে গ্রামের হতদরিদ্রদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টার দিকে ভালাইপুর গ্রামের মাঠে যুব উন্নয়ন সঙ্ঘের সভাপতি প্রধান শিক্ষক এনামুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চিৎলা ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের যুগ্মআহ্বায়ক আসাদুজ্জামান কবীর, গোকুলখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আমির হোসেন, প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক, সাংগঠনিক সম্পাদক মহাসিন রেজা, দৈনিক মাথাভাঙ্গার প্রতিনিধি সাইদুর রহমান। বক্তব্য রাখেন- যুব সঙ্ঘের সহসভাপতি ছমির আলী, আজহারুল ইসলাম মুক্তার, মুফাজ্জেল হোসেন, আকালে, মজিবুল হক, ইসরাইল হোসেন, সাইফুর ইসলাম, সুলতান হোসেন প্রমুখ।

আলমডাঙ্গা ব্যরো জানিয়েছে, প্রচণ্ড শীত পড়ছে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা থানায়। গত মঙ্গলবার থেকে টানা চার দিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে এ জেলায়। শীতের তীব্রতার সাথে দুর্ভোগ বেড়েছে মানুষের। সেই সাথে বেড়েছে শিশুদের শীতঘটিত রোগ। চার দিন ধরে সূর্যের লুকোচুরি আর মৃদু শৈত্যপ্রবাহের কারণে শীতের তীব্রতা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। এর ফলে ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। বিশেষ করে হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষেরা দুর্ভোগে পড়েছেন। জীবিকার তাগিদে শীত উপেক্ষা করে বাইরে বের হতে হচ্ছে তাদের। এ শীতে হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে গতকাল শুক্রবার উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। দরিদ্র মানুষের শীত নিবারণের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশরাফুল আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুন ও সহকারী পিআইও আব্দুল লতিফকে সাথে নিয়ে সন্ধ্যা পর আলমডাঙ্গা ক্যানেলপাড়ার হতদরিদ্র বৃদ্ধদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার শীতার্তদের মাঝে সরকারি শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে। এছাড়াও সমাজের বিত্তবানদের দরিদ্র শীতার্তদের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান জানান।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, অসহায়, গরিব ও দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে মেহেরপুর ইস্টল্যাল্ড ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। গতকাল বিকেলে ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন মডেল একাডেমী প্রাঙ্গণে অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ওই কম্বল বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কোম্পানির ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর আমিনুল ইসলাম। ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশনের সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি এএলএম জিয়াউল হক, সহসভাপতি জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাড. মিয়াজান আলী, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান মালেক, যুগ্ম সম্পাদক পিপি অ্যাড. পল্লব ভট্টাচার্য ও কোম্পানির মেহেরপুর শাখা ব্যবস্থাপক নূরুল ইসলাম।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ওয়াকার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য নুর আহম্মেদ বকুল মেহেরপুর গাংনীতে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মাবুদ প্রধান অতিথি হিসেবে দুস্থদের হাতে এ কম্বল তুলে দেন। উপস্থিত ছিলেন কমরেড মজনুল হক মজনু, রমজান আলী, এনামুল হক, আইনাল হক, আজিজুল হক, তৈয়ব আলীসহ ওয়ার্কার্স পাটির বিভিন্ন ইউনিট নেতৃবৃন্দ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.